করোনার ঔষধ

এমপিও

♥জানি মূর্খেরা এর মূল্যায়ন করবে না♥
★#হাদীছথেকেকরোনাভাইরাসেরপ্রতিকার,,,।
<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<>>>>>>>>>>>>>>>

ইসলাম একটি পরিপূর্ণ জীবন বিধান। কিয়ামত পর্যন্ত মানুষ যত সমস্যার সম্মুখীন হবে তার সমাধান দেয়া আছে কুরআন ও হাদীছে। গবেষণা করে সে সমাধান বের করতে হয়।

অনুরূপ ভাবে অতিসম্প্রতি কালের ভয়াবহ মহামারী করোনা ভাইরাসের ঔষধের কথা বলে গেছেন রাসূল (সাঃ) আজ থেকে সাড়ে চোদ্দশ বছর পূর্বে। রাসূল (সাঃ)বলেছেন,
-ماانزل الله دائ الا أنزل الله شفاء

আল্লাহ এমন কোন রোগ পাঠাননি যার আরোগ্যের ব্যবস্হা দেননি।(বুখারী হা/৫৬৭৮)

করোনাভাইরাসেরসাধারণউপসর্গ_৪টি।

যথাঃ-
১.)#জ্বর।
২.)#সর্দি/হাঁচি।
৩.)#শ্বাসকষ্ট/ কাঁশি।
৪.)#সর্বশেষ পাতলা পায়খানা।

১.। #জ্বরের চিকিৎসা সম্পর্কে রাসূল (সাঃ) বলেছেন-
الحمى من فيح جهنم
فاطفئوها بالمائ

জ্বর জাহান্নামের উত্তাপ থেকে হয়। কাজেই তাকে পানি দিয়ে নিভাও। (বুখারী হা/৫৭২৩)

২। #সর্দি/ হাঁচি

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, কালোজিরার পাঁচটি বা সাতটি দানা পিষে তাতে যয়তুনের তেল (অলিভ অয়েল) মিশিয়ে ফোঁটা-ফোঁটা করে নাকের ছিদ্রে প্রবেশ করাবে।

কেননা এটি মৃত্যু ছাডা সব রোগের ঔষধ।
(বুখারী হা/৫৬৮৭)

৩। #শ্বাসকষ্ট / কাঁশি

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছন,

عليكم بهذه العود الهندي فإن فيه سبعة اشفيه يستعط به من العذرة
তোমার ভারতীয় চন্দন কাঠ ব্যবহার করবে। কেননা তাতে সাতটি রোগের আরোগ্য রয়েছে।

শ্বাসনালীর ব্যথার জন্য এর ধোঁয়া নাকে টেনে নিবে।

(বুখারী হ/৫৬৯২)

৪। #পাতলা_পায়খানা

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন,

الشفاء فى ثلاثة شربة عسل
তিনটি জিনিসের মধ্যে রোগমুক্তি আছে।
১)#মধু। (বুখারী হা/৫৬৮০)

জৈনক ছাহাবী বলল, হে আল্লাহর রাসূুল (সাঃ) আমার ভাইয়ের পেট খারাপ হয়েছে। তিনি বললেন, তাকে মধু পান করাও।

তাকে মধু পান করানো হলো। কিন্তু রোগ আরো বেড়ে গেল।
এভাবে তিনবার মধু পান করানোর পরেও রোগ ভালো হচ্ছিলনা।
তখন রাসূল (সাঃ)বললেন-
صدق الله وكذب بطن اخيك

Read more and more  শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩১ মার্চ থেকে বাড়িয়ে আগামী ঈদুল ফিতর পর্যন্ত হতে পারে

আল্লাহ সত্য বলেছেন। কিন্তু তোমার ভাইয়ের পেট তা মিথ্যা প্রতিপন্ন করতে চায়।

সুতরাং আবার মধু পান করাও। এবার পুরোপুরিভাবে সুস্থ হয়ে গেল। (বুখারী হা/৩৭১৬।)

মহান আল্লার প্রতি তাওয়াক্কুল রেখে ও রাসূল (সাঃ) এর চিকিৎসা পদ্ধতির প্রতি পূর্ণ বিশ্বাস রেখে এগুলো সেবন করলে করোনা ভাইরাস থেকে আরোগ্যলাভ করা যাবে,, #ইনশাআল্লাহ।

এছাড়া প্রতিষেধক হিসেবে প্রত্যেক দিন সকালে খালি পেটে সাতটি আজওয়া খেজুর, মধু ও কালোজিরার তেল মিশ্রণ করে সেবন করা যেতে পারে যা ছহীহ হাদীছ দ্বারা প্রমাণিত।

বিশেষদ্রষ্টব্যঃ-

ডাক্তারগণ যেমন প্রত্যেক উপসর্গের জন্য আলাদা- আলাদা ঔষধ দিয়ে থাকেন, রাসূল (সাঃ)ও প্রত্যেক উপসর্গের জন্য আলাদা-আলাদা ঔষধের কথা বলেছেন,,।

সারা পৃথিবীর অনেক দেশ এখন লকডাউন,,

কিন্তু আল্লাহর আরশ এখনও
লকডাউন হয়নি।কিয়ামতের আগ পর্যন্ত হবে না,,
হে মানুষ ! এখনও সময় আছে
তওবা করে আল্লাহর পথে
ফিরে আসার।

আল্লাহ আমাদের উপর রহমত নাজিল করুন,,,।

আমীন,,,।

খুব সস্তা এখনি কিনুন

Get involved!

Comments

No comments yet